Dr. Bashir Mahmud Ellias's Blog

Know Thyself

Potato chips are dangerous for kids health

Leave a comment

Potato chips are dangerous for kids health

Recently a report was published about potato chips in the national dailies which said that chips are very useful for kids health. It also claimed that chips contain various vitamins which help kids growth. It is essential to protest such erroneous propaganda to ensure public interest. The real fact is that all kinds of chips are dangerous for kids health whether it may be made from potato, banana, mango or tomato. But we should know which ingredient of chips is harmful for babies health. Yea, that ingredient is the notorious “salt”. Usually most of the brand of chips contain huge amount of salt which is totally absorbed in kids body. This ever known table salt (sodium chloride) is the most mischievous substance for human body. You may say that salt is an essential substance to run our body function and to sustain it’s growth. Yea, that’s right but the problem is with the amount. Naturally the amount of salt we get from food grains, fish, meat, fruits, vegetables etc is enough for our body’s daily requirement. And the excess amount of salt we eat usually cause serious harm to our body.

The first extensive research about the effect of salt on our body, was done by dr. Samuel Hahnemann, the inventor of homeopathic medical science. This great German scientist had prepared a medicine from salt and had taken himself for long days to test its effect on human body, about two hundred years ago. At the same time he also verified the result by proving salt on the bodies of his follower homeopathic doctors. From these extensive research, Hahnemann came to know that salt destroys blood and cause anaemia. Secondly, salt causes emaciation of human body. If it is not timely treated, people die being a skeleton. Excess intake of salt causes constipation and constipation causes piles, anal fissure, rectal prolaps, rectal cancer etc. salt also reduce the capacity of our brain ; as a result our intellect and memory are ruined. Excessive intake of table salt extremely damage our immune system ; as a result people begin to suffer from common cold, cough, fever, diarrhoea etc very frequently. Over use of salt also deteriorates the quality of our skin and in consequence we become the easy victim of various skin diseases.

Unrestrained consumption of salt also causes gout, mouth ulcers, rheumatic fever, diabetes, migraine, hypertension, erysipelas, goitre, headache, menstrual disorders, heart diseases, epilepsy, peptic ulcer, sterility, glandular diseases, cancer etc. Now come to the psychological sphere of salt diseases. The first psychological disease you will get from excessive intake of salt is the irritability of mind, bad temper. The second and the severe psychological problem is the depression, caused by salt. From depression most of the people develop suicidal tendency and then a minor portion of them suicides by hanging, jumping, shooting etc. Some people grows the habit of fastidiousness or abnormal fixed ideas. Then he start washing his hands frequently ; become crazy about cleanliness. At the last stage of all these psychological disorders, people turns fully mad (ie. schizophrenic). He will commence controlling the traffic being naked. All these are the miracles of our loving salt (ie. sodium chloride). Chips also contains an another salt which is called tasty salt (ie. sodium glucomate). Scientists has found that it has a link with the urinary cancers. So from now you should think twice before buying chips for your children. But there are few brands (of chips) which does not contain (excessive) salt. You can use these brands considering safe for your kids.

Dr. Bashir Mahmud Ellias Author, Design specialist, Homeo consultant chamber : Jagarani homeo hall
47/4 Toyenabi circular road (2nd flr),
(near ittefaq crossing & studio 27)
Motijheel, Dhaka,
Bangladesh.
Mob : +880-01916038527
E-mail : Bashirmahmudellias@hotmail.com
Website : http://bashirmahmudellias.blogspot.com

পটেটো চিপস্‌ শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর

সমপ্রতি জাতীয় দৈনিকগুলোতে একটি রিপোর্ট বেড়িয়েছিল যে, পটেটো চিপস্‌ শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। তাতে আরো দাবী করা হয়েছিল যে, চিপসে নাকি অনেকগুলো প্রয়োজনীয় ভিটামিন থাকে যা শিশুদের স্বাস্থ্যের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে থাকে। জনস্বার্থে এই ধরণের বিভ্রানিতকর সংবাদের প্রতিবাদ করা জরুরি মনে করছি। এটি পুরোপুরি একটি মিথ্যা এবং ক্ষতিকর প্রচারণা। বাসতব সত্য হলো সব ধরণের চিপস্‌ই শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর, সেটি পটেটো, বেনানা, ম্যাংগো কিংবা টমেটো যে-কোন জিনিস থেকেই তৈরী করা হউক না কেন। তবে আমাদেরকে জানতে হবে চিপসের কোন উপাদানটি শিশুদের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে থাকে ? হ্যাঁ, সেই উপাদানটি হলো লবণ। সাধারণত চিপসের সাথে প্রচুর পরিমাণে লবণ থাকে এবং সেগুলো শিশুদের পেটে চলে যায়। এই লবণই হলো মানব শরীরের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকর পদার্থ। সবাই হয়তো বলবেন যে, লবণ আমাদের শরীরের স্বাভাবিক বৃদ্ধি এবং ক্ষয়রোধের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান। হ্যাঁ, তা ঠিক কিন্তু বিতর্কটা হলো লবণের পরিমাণ নিয়ে। সাধারণত ডাল-ভাত, মাছ-মাংস, ফল-মুল, শাক-সবজি ইত্যাদিতে প্রাকৃতিকভাবে যে পরিমাণে লবণ থাকে, তাতেই আমাদের শরীরের দৈনন্দিন লবণের চাহিদা পুরণ হয়ে যায়। ইহার অতিরিক্ত যে লবণ আমরা খাই, সেগুলো আমাদের শরীরের ভয়ঙ্কর ক্ষতি করে থাকে।

লবণ আমাদের শরীরের উপর কি ধরণের ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে, এই সমপর্কে সর্বপ্রথম বাসতবসম্মত গবেষণা পরিচালনা করেন ডাঃ স্যামুয়েল হ্যানিম্যান। হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের আবিষ্কারক এই মহান জার্মান চিকিৎসা বিজ্ঞানী আজ থেকে প্রায় দুইশ বছর পুর্বে দীর্ঘদিন যাবত নিজে লবণ বা সোডিয়াম ক্লোরাইড (sodium chloride) খেয়ে শরীরের উপর তার ক্ষতিকর প্রভাব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। পাশাপাশি তিনি তাঁর ভক্ত অনুসারী অনেক হোমিও চিকিৎসকদের শরীরেও লবণের গুণাগুণ যাচাই করেন। প্রাপ্ত গবেষণায় তিনি দেখতে পান যে, লবণ প্রথমত মানুষের শরীরের রক্ত ধ্বংস করার মাধ্যমে রক্তস্বল্পতা (Anemia) সৃষ্টি করে। ইহার ফলস্রুতিতে শরীর শুকিয়ে শীর্ণ বা চিকন হয়ে যায়। সময়মতো ইহার চিকিৎসা করা না গেলে মানুষ কংকালসার হতে হতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। দীর্ঘদিন বেশী বেশী লবণ খাওয়ার ফলে কোষ্টকাঠিন্য দেখা দেয় অর্থাৎ পায়খানা শক্ত হয়ে যায় এবং তার থেকে পাইলস দেখা দেয়। লবণ মানুষের ব্রেনের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয় ; ফলে মানুষের বুদ্ধি-মেধা, স্মরণশক্তি ইত্যাদি কমে যায়। লবণ মানুষের ইমিউনিটি বা রোগ প্রতিরোধ শক্তি দুর্বল করে দেয় ; ফলে মানুষ ঘনঘন সর্দি, কাশি, ডায়েরিয়া ইত্যাদি নানাবিধ রোগে আক্রানত হয়। চামড়া দুর্বল হয়ে যায় ফলে অল্পতেই চামড়া ফেটে যাওয়াসহ বিভিন্ন চর্মরোগ দেখা দেয়।

বেশী বেশী লবণ খাওয়ার ফলে গেটেবাত, রিউমেটিক ফিভার, মুখের ঘা, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, মাথাব্যথা, অর্ধেক মাথাব্যথা/মাইগ্রেন, গলগন্ড, বিভিন্ন গ্ল্যান্ডের রোগ, মাসিকের গন্ডগোল, হৃদরোগ, মৃগীরোগ, বন্ধ্যাত্ব, গ্যাস্ট্রিক আলসার, ক্যান্সার প্রভৃতি মারাত্মক রোগের সৃষ্টি হয়ে থাকে। বেশী বেশী লবণ খাওয়ার ফলে যে-সব মানসিক সমস্যা দেখা দেয়, তাদের মধ্যে প্রথমেই দেখা দেয় বদমেজাজ বা খিটখিটে মেজাজ । তারপরে আসে বিষন্নতা বা মনমরাভাব, হতাশা । বিষন্নতা বা হতাশা থেকে মানুষের মধ্যে আত্মহত্যা করার প্রবল ঝোঁকের সৃষ্টি হয় এবং এদের মধ্যে একটি ক্ষুদ্র অংশ সত্যিসত্যি আত্মহত্যা করে বসে (গলায় দড়ি দিয়ে, উপর থেকে লাফ দিয়ে, ঘুমের বড়ি খেয়ে কিংবা মাথায় গুলি করে)। ইহার পরে দেখা দেয় খুতঁখুতেঁ স্বভাব বা সাধারণভাবে যাকে শুচিবাই (Fastidiousness) বলা হয়। সারাক্ষণ সে হাত ধুঁতে থাকে ; প্লেট, বিছানার চাদর ইত্যাদি পরিষ্কার করতে থাকে। আর সবশেষে আসে উন্মত্ততা বা পাগলামি (schizophrenia) ; তখন হয়ত দেখা যাবে সে উলঙ্গ হয়ে রাজপথের ট্রাফিক কনট্রোল করতে শুরু করেছে। এই তো গেলো খাবার লবণ বা সোডিয়াম ক্লোরাইডের তেলেসমাতি। খাবার লবণের পাশাপাশি চিপসগুলোতে আরেক ধরণের লবণও ব্যবহার করা হয়, যাকে টেস্টিং সল্ট বা সোডিয়াম গ্লোটামেট (sodium glutamate) বলা হয়। অনেক বিজ্ঞানী মনে করেন এটি কিডনী এবং মুত্রনালীতে ক্যান্সার সৃষ্টি করে থাকে। কাজেই যারা হরহামেশা সকাল-বিকাল শিশুদের নানা রকমের চিপস্‌ খেতে দেন, এখন থেকে এই কাজ করার পুর্বে তাদের অবশ্যই দ্বিতীয়বার ভেবে নেওয়া উচিত। তবে দুয়েকটি ব্রান্ডের চিপসে দেখেছি লবণ থাকে না কিংবা বলা যায় লবণ খুবই কম থাকে। এসব ব্রান্ডের চিপস্‌ নিশ্চিতভাবেই শিশুদের স্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ। এই লবণমুক্ত চিপসগুলো শিশুদের খাওয়াতে পারেন।

ডাঃ বশীর মাহমুদ ইলিয়াস
গ্রন্থকার, ডিজাইন স্পেশালিষ্ট, ইসলাম গবেষক, হোমিও কনসালটেন্ট
চেম্বার ‍ঃ জাগরণী হোমিও হল
৪৭/৪ টয়েনবী সার্কুলার রোড (নীচতলা)
(ইত্তেফাক মোড়ের পশ্চিমে এবং স্টুডিও 27 এর সাথে)
টিকাটুলী, ঢাকা।
ফোন ঃ +৮৮০-০১৯১৬০৩৮৫২৭
E-mail : Bashirmahmudellias@hotmail.com
Website : http://bashirmahmudellias.blogspot.com
Website : https://bashirmahmudellias.wordpress.com

Author: bashirmahmudellias

I am an Author, Design specialist, Islamic researcher, Homeopathic consultant.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s