Dr. Bashir Mahmud Ellias's Blog

Know Thyself

Mental diseases and their real cure

Leave a comment

Mental diseases, psychological diseases (মানসিক রোগ)ঃ- আমরা শারীরিক বা মানসিকভাবে অসুস্থ হলে কোন চিকিৎসা পদ্ধতি অবলম্বন করে চিকিৎসা করলে সবচেয়ে দ্রুত, আরামের সাথে আর কম খরচে সম্পূর্ণরূপে স্থায়ীভাবে রোগমুক্ত হতে পারব, তা ঠিক করতে প্রায়ই ভুল করে থাকি। সোজা কথায় শারীরিক বা মানসিক যে-কোন ধরণের রোগেই আমরা আক্রান্ত হই না কেন, প্রথমেই আমাদের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা অবলম্বন করা উচিত। কেননা ঔষধের যাদুকরী শক্তি বলতে যা বোঝায়, তা কেবল হোমিওপ্যাথিক ঔষধেরই আছে। হোমিও চিকিৎসার ব্যর্থতার পরেই কেবল আমাদের সার্জারী বা অস্ত্রচিকিৎসার কথা স্মরণ করা উচিত। মানসিক রোগের চিকিৎসায়ও প্রথমেই আমাদের হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা অবলম্বন করা উচিত। কেননা মানুষের মনকে পরিবর্তন বা প্রভাবিত করার ক্ষমতা কেবল হোমিওপ্যাথিক ঔষধেরই আছে। এলোপ্যাথিক, ইউনানী, আয়ুর্বেদিক প্রভৃতি ঔষধের মানুষের মনের উপর কোন ক্রিয়া করার ক্ষমতা নেই। হ্যানিম্যান প্রমাণ করে গেছেন যে, শারীরিক কোন রোগের কুচিকিৎসাই হলো অধিকাংশ মানসিক রোগের মূল কারণ। (ক) মজার মজার বিষয় কল্পনায় দেখে বা শোনে, ভীষণ ক্রুদ্ধ, হিংস্র চাহনি, রক্তচক্ষু, আঘাত করা বা কামড়ানোর প্রবনতা, কল্পনায় দৈত্য-দানব, ভূ-প্রেত, পোকা-মাকড় ইত্যাদি দেখা, আলোকভীতি, ভীতিকর স্বপ্নের জন্য ঘুমাতে না পারা, মসি-ষ্কের রক্তসঞ্চয় ইত্যাদি লক্ষণযুক্ত পাগলামীতে বেলেডোনা ঔষধটি অব্যর্থ। ৩, ৬ শক্তি দুই ঘণ্টা পরপর খাওয়াতে থাকুন। (খ) প্রচণ্ড উন্মত্ততা, প্রলাপ, বকবকানি, অন্ধকারভীতি, পানিভীতি, মাথায় রক্তসঞ্চয়, নিঃসঙ্গতায় ভয়, পলায়ণপর ভাব, প্রচণ্ড ভীতিভাব ইত্যাদি লক্ষণে স্ট্র্যামোনিয়াম ঔষধটি কার্যকরী। ৩, ৬ শক্তি দুই ঘণ্টা পরপর খাওয়াতে থাকুন। (গ) মানসিক অসুস্থতার সাথে অশ্লীল কথা, গান বা অঙ্গভঙ্গি, গায়ের কাপড় ফেলে দেয়া বা যৌনাঙ্গ প্রদর্শন করা, একা থাকতে ভয়, অন্যরা তাকে কামড়াবে বা বিষপ্রয়োগে হত্যার ভয়, কিছু দিলে নিতে অস্বীকার করা, সবাই তার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করতেছে, পানিভীতি ইত্যাদি লক্ষণে হায়োসাইয়েমাস ঔষধটি অব্যর্থ। ২০০ শক্তি থেকে খাওয়ানো শুরু করে ক্রমান্বয়ে উচ্চশক্তিতে যান। (ঘ) শারীরিক বা মানসিক ব্যাধির সাথে যদি সবাইকে সন্দেহ করার প্রবনতা, স্মরণশক্তি হ্রাস পায়, হিংসুটে ভাব, অযথা অভিসমপাত এবং মিথ্যা কসম খাওয়া, হাঁটার সময় মনে হয় কেউ তাকে অনুসরণ করছে, এখনই ভয়ঙ্কর কিছু একটা ঘটবে এমন ভয়, অশরীরি কে যেনো তাকে আদেশ করছে এবং অন্যজন তাকে নিষেধ করছে, নিজের বা অন্যের উপর আস্থার অভাব ইত্যাদি লক্ষণে এনাকার্ডিয়াম (শক্তি ২০০, ১০০০) যাদুর ন্যায় কাজ করে। (ঙ) লোকেরা বিষ খাওয়ায়ে হত্যা করবে, ঔষধ খেতে অস্বীকার করা, অতিপ্রাকৃত কেউ তাকে নিয়ন্ত্রণ করছে মনে করা, সারাক্ষণ বকবকানিতে ব্যস্ত, মিনিটে মিনিটে কথার প্রসঙ্গ পাল্টে ফেলে, হিংসাত্মক মানসিকতা, কল্পনায় হাতি-ঘোড়া মারার বক্তৃতা, গরমকাতরতা, রাতের বেলা বৃদ্ধি ইত্যাদি লক্ষণযুক্ত মানসিক অসুস্থতায় ল্যাকেসিস ঔষধটি প্রযোজ্য। ২০০ শক্তি থেকে খাওয়ানো শুরু করে ক্রমান্বয়ে উচ্চশক্তিতে যান। (চ) প্রেমে ব্যর্থতা, বিষণ্নতা, আপনজনের মৃত্যু, বিরহ, ভীষণ মানসিক কষ্ট ইত্যাদির পরে প্রথমে ইগ্নেশিয়া(শক্তি ৩,৬) এবং পরে নেট্রাম মিউর (শক্তি ২০০, ১০০০) খাওয়া জরুরি। (Q) ঝগড়া-ঝাটি, অপমান, ধর্ষন, তালাক ইত্যাদির পরে ষ্ট্যাফিসেগ্রিয়া (শক্তি ৩০,২০০) খান, আপনার শরীর-মন স্বাভাবিক হয়ে আসবে। (জ) শিশুদের মাত্রাতিরিক্ত দুষ্টুমির জন্য মেডোরিনাম (শক্তি ১০০০) খাওয়ান। যারা ঘরের ভেতর স্বৈরাচার কিন্তু বাইরে অতিশয় ভদ্রলোক তাদের জন্য লাইকো (শক্তি ১০,০০০) ঔষধটি খুবই ফলদায়ক। (ঝ) কথায় কথায় ভাঙচুর বা ধ্বংসাত্মক আচরণে অভ্যস্থ, অল্পতেই ভীষণ ক্ষেপে যায়, কুকুরকে ভয় পায়, ভ্রমণ পছন্দ লক্ষণে টিউবারকুলিনাম। ১০০০ শক্তি মাসে একমাত্রা করে কয়েক মাস খান এবং পরবর্তীতে শক্তি বৃদ্ধি করে খান। (ঞ) চরমমাত্রায় অস্থিরতা, সর্বদা একটা কিছু করতে হয়, নড়াচড়া ছাড়া থাকতে পারে না, অপ্রয়োজনে চুরি করার স্বভাব ইত্যাদি লক্ষণে টেরেন্টুলা হিস ভালো। (ট) নিজেকে খুব বড় মনে করা, নিজেকে ব্যতীত সবকিছুকে গুরুত্বহীন মনে করা ইত্যাদি লক্ষণে প্লাটিনাম (শক্তি ২০০)। (ঠ) অতিরিক্ত মানসিক উত্তেজনার জন্য কফিয়া (শক্তি ৩,৬,৩০,২০০) । (ড) ভয়ানক বদমেজাজের জন্য নাক্স ভমিকা, ক্যামোমিলা কিংবা ক্যালি আয়োড (শক্তি ৩০,২০০) খান। (ঢ) যারা নিজের চাইতে অন্যের দুঃখ-কষ্টে বেশী কাতর হয়ে পড়েন, তাদের জন্য কষ্টিকাম (শক্তি ৩০,২০০) । (ণ) শীঘ্রই পাগল হয়ে যাব মনে হলে ক্যাল্কে কার্ব অথবা একটিয়া রেসি আপনার উদ্ধারকারী (শক্তি ৩০,২০০) । (ত) গাজা খাওয়ার পরে মনে যেমন স্ফূর্তির ভাব হয়, তেমন মানসিক অবস্থায় অথবা মানসিক হীনমন্যতার জন্য ক্যানাবিস ইন্ডিকা (শক্তি ৩,৬) । (থ) অতীব মৃত্যুভয়, আমার রোগ কখনও ভালো হবে না, মৃত্যু নিশ্চিত ইত্যাদি লক্ষণে আর্সেনিক (শক্তি ৩০,২০০) আপনাকে আরোগ্য করবে। (দ) শুঁচিবাইয়ের জন্য থুজা খান পক্ষান্তরে নোংরা বা অপরিচ্ছন্ন স্বভাবের জন্য সালফার বিধেয়। ২০০ শক্তি সপ্তায় একবার করে দুইমাস খান। (ধ) নোংরামি, লুচ্চামি, হস্তমৈথুন ইত্যাদি স্বভাব দূর করার জন্য বিউফো রানা (শক্তি ২০০) সপ্তায় একমাত্রা করে তিনমাস খান। (ন) অতিরিক্ত লবণ খাওয়ার জন্য নেট্রাম মিউর আর অতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়ার জন্য আর্জ নাই কিংবা লাইকো অব্যর্থ ঔষধ। শক্তি ২০০ চারদিন পরপর একমাত্রা করে দু’তিন মাস খাওয়ান।

Author: bashirmahmudellias

I am an Author, Design specialist, Islamic researcher, Homeopathic consultant.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s