Dr. Bashir Mahmud Ellias's Blog

Know Thyself

সমকামিতার জন্য আল্ লাহ খুব শীঘ্রই ইউ রোপ আমেরিকা কানাডা অস্ট্রেলিয়াকে ধ্ব ংস করিবেন

Leave a comment

আমেরিকা, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানী ইত্যাদি যে-সব দেশ সমকামিতাকে (একই লিঙে বিবাহ) রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দিয়াছে, এই দেশগুলিকে আল্লাহ খুব শীঘ্রই ধ্বংস করিয়া দিবেন । অতীতেও যে-সব জাতির মধ্যে সমকামিতার প্রচলন হইয়াছিল, আল্লাহ তাহাদেরকে ভয়াবহ শাস্তি দিয়া ধ্বংস করিয়াছেন । আমাদেরকে মনে রাখিতে হইবে যে, আল্লাহর আইনে কোন পরিবর্তন হয় না । কাজেই মুসলমানদের উচিত যত দ্রুত সম্ভব এই দেশগুলো ত্যাগ করিয়া অন্যত্র চলিয়া যাওয়া ।
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস

দাজ্জাল বর্তমানে রাজনীতি, অর্থনীতি প্রভৃতির মতো ধর্মীয় ক্ষেত্রেও এতো বেশী প্রতারণার জাল বিছিয়ে যে, আপনার মনে হবে আপনি জান্নাতের পথে জীবন অতিবাহিত করেছেন অথচ বাস্তবে আপনার জীবন কেটেছে জাহান্নামের পথে । কাজেই খুবই সাবধান । কাজেই দাজ্জালের ফেতনাহ থেকে বাঁচার জন্য সর্বদা একজন ভালো আলেমের পরামর্শ মতো চলুন । আর ভালো আলেম তাকেই বলা যায়, যিনি কেবল এলেমই অর্জন করেন নাই, সাথে সাথে সেই অনুযায়ী আমল করিয়া উর্ধ্বজগতের সাথে নিজের সম্পর্ক সৃষ্টি করেছেন । ফলে তিনি আল্লাহ তায়ালার নিকট থেকে (স্বপ্নের / অনুপ্রেরনার মাধ্যমে) সর্বদা পথনির্দেশনা লাভ করিয়া থাকেন ।
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস

মহাবিশ্বের সকল বস্তুর শ্রষ্টা একমাত্র আল্লাহ । সুতরাং এই সকল বস্তুর মূল্য নির্ধারণের অধিকার একমাত্র তাঁহারই আছে । আল্লাহ তায়ালা সোনা এবং রূপাকে সবচেয়ে মূল্যবান বস্তু ঘোষণা করিয়াছেন । আপনি এক টুকরা কাগজে কিছু রঙ মাখিলেন এবং একটি নাম্বার দিলেন । তারপর ইহাকে ঘোষণা করিলেন এক হাজার টাকা (ডলার / রিয়াল) হিসাবে । ইহার চাইতে বড় প্রতারণা এবং খোদাদ্রোহীতা (শিরক) আর কি হইতে পারে ?
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস

আদর্শ মুসলিম গ্রামে মোবাইল ব্যবহার নিষিদ্ধ
আমাদের আদর্শ মুসলিম গ্রামে যে-সকল মুসলিম নারীরা বসবাস করিতে আসিবেন, তাহাদের জন্য স্বামীর প্রয়োজন আছে । কাজেই যেই সকল মুসলিম পুরুষ আমাদের আদর্শ গ্রামে বসবাস করিতেন চান, তাহাদেরকে আমরা স্বাগত জানাই । কিন্তু তাহাদের জন্য মোবাইল এবং ল্যাপটপ ব্যবহার করা নিষিদ্ধ । কেননা মোবাইল এবং ল্যাপটপের ওয়ারলেস / ওয়াইফাই রেডিয়েশান পুরুষদের শুক্রাণুর ক্ষতি করিয়া থাকে । ফলে তাহারা কেবল কন্যা সন্তান জন্ম দিতে থাকে । পুত্র সন্তান জন্ম দিতে অক্ষম হইয়া পড়ে । কাজেই আমাদের আদর্শ মুসলিম গ্রামে পুরুষদের জন্য মোবাইল / ল্যাপটপ ব্যবহার নিষিদ্ধ ।
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস
দাজ্জাল আমাদের অনেক মুসলিম বোনের ব্রেনওয়াশ করিয়া দিয়াছে । ফলে তাহার এখন পুরুষদের মতো বড় বড় ডিগ্রী দরকার, বড় বড় চাকুরি দরকার, চাকরিতে বড় বড় প্রমোশন দরকার ইত্যাদি ইত্যাদি । এইগুলিকে সে তাহার জন্মগত অধিকার মনে করে । কাজেই সে এখন পুরুষদের সাথে কমপিটিশন দিয়ে বড় বড় ডিগ্রী নেয়, পুরুষদের সাথে ধাক্কাধাক্কি করিয়া রোজ অফিসে আসা-যাওয়া করে । তারপর ক্লান্ত-শ্রান্ত হইয়া বাসায় আসিয়া ঘুমাইয়া পড়ে । স্বামী-সন্তানের প্রতি এখন দ্বায়িত্ব পালন করা তাহার পক্ষে অসম্ভব । নিজের শিশু সন্তানকে কাজের মেয়ে অথবা ডেকেয়ার সেন্টারে কাঁদিয়ে রেখে অফিসে চলে যায় । মায়ের কাছে থাকা যে শিশুর অধিকার তাহা সে স্বীকার করে না । তাহার নিকট তাহার শিশুর অধিকারের চাইতে তাহার নিজের অধিকার বেশী গুরুত্বপূর্ণ । কিন্তু বোন আপনি একটি কথা মনে রাখিবেন । আল্লাহ বলিয়াছেন, প্রতিটি কাজেরই একটি ফলাফল আছে । একদিন আপনার চাকুরি থাকিবে না, আপনার শরীরের শক্তি থাকিবে না । আপনি বৃদ্ধ, দুর্বল আর অসহায় হইয়া পড়িবেন । পক্ষান্তরে আপনার অসহায় শিশু সন্তান যুবক-যুবতী হইবে, শক্তিশালী হইবে, চাকুরি নিয়ে ব্যস্ত হইয়া পড়িবে । সে তখন আপনাকে ঝামেলা মনে করিয়া বৃদ্ধাশ্রমে ফেলিয়া আসিবে । আপনি তখন চোখের জলে বুক ভাসাবেন যেভাবে আপনার শিশু সন্তান বুক ভাসাইত ।
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস

প্রশ্ন ঃ আপনি তো মনে করেন পারমাণবিক অস্ত্রধারী আমেরিকা এবং রাশিয়ার সেনাবাহিনীই ইয়াজুজ মাজুজ এবং তাদের পারমাণবিক ক্ষেপনাস্ত্রগুলিই ইয়াজুজ মাজুজের তীর । এখন কথা হইল আমেরিকা এবং রাশিয়া কখনো যুদ্ধ লাগিলে তাহারা একে অপরের দিকে তীর নিক্ষেপ করিবে । কিন্তু হাদীসে তো বলা হইয়াছে ইয়াজুজ মাজুজ আকাশের দিকেও তীর নিক্ষেপ করিবে । আপনার কাছে ইহার কি ব্যাখ্যা আছে ?
উত্তর ঃ প্রকৃতপক্ষে এখনকার দিনে যুদ্ধকৌশলের অধিকাংশই নিয়ন্ত্রিত হইয়া থাকে মহাশূণ্যে স্থাপিত মহাকাশযান বা স্প্যাস সেটেলাইট থেকে । কাজেই আসন্ন সেই মহাযুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার জন্য আমেরিকা এবং রাশিয়া প্রথমেই আকাশে স্থাপিত প্রতিপক্ষের সেটেলাইটগুলোকে ধ্বংস করিবার জন্য ক্ষেপনাস্ত্র (তীর) নিক্ষেপ করিবে । (ইতিমধ্যেই চীন ক্ষেপনাস্ত্রের আঘাতে মহাশূণ্যযান ধ্বংস করিবার পরীক্ষা চালাইয়া সফলতা লাভ করিয়াছে ।)
মূল – শাইখ ইমরান নজর হোসেন
অনুবাদ – বশীর মাহমুদ ইলিয়াস

কোন দেশে যদি বোরখাবিরোধী অথবা দাড়িবিরোধী আইন করা হয় আর আপনি বোরকা খুলে ফেলেন অথবা দাড়ি সেভ করে ফেলেন, তাতে কিন্তু জাহান্নাম থেকে বাঁচতে পারবেন না । আল্লাহ অবশ্যই আপনাকে প্রশ্ন করবেন যে, আমার দুনিয়া কি এতো ছোট ছিল যে তুমি অন্য কোথাও যাওয়ার জায়গা পেলে না ?
শাইখ ইমরান নজর হোসেন

Author: bashirmahmudellias

I am an Author, Design specialist, Islamic researcher, Homeopathic consultant.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s